ছৈয়দুল হক উচ্চ বিদ্যালয়ে ঈদ পূনর্মিলনী  করেরহাট আ.লীগে কামরুলের নেতৃত্ব চায় তৃনমূল নেতা-কর্মীরা  মিরসরাই আওয়ামীলীগের কাউন্সিল : সম্ভাব্য প্রার্থীদের দৌড়ঝাপ  মিরসরাইয়ে মানসিক ভারসাম্যহীন ব্যক্তির হামলায় বৃদ্ধা নিহত  ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটিতে মিরসরাইয়ের তামান্না  মিরসরাইয়ে ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে ড্রেন দখল চেষ্টার অভিযোগ  নামী দামি ব্রান্ডের ৫২ পণ্য বিক্রি বন্ধে আদালতের নির্দেশ  সমুদ্রের ৩৮ কি.মি গভীরে জিপির নেটওয়ার্ক মিললেও মেলে না ঘরে ভেতর  তিউনিসিয়ায় নৌকা ডুবে মৃত ৬০ জনের অধিকাংশ বাংলাদেশি  মিরসরাই আ’লীগের কাউন্সিল : আলোচনায় অর্ধ ডজন সম্ভাব্য প্রার্থী


লিডনিউজ | logo

৩রা অগ্রহায়ণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ | ১৭ই নভেম্বর, ২০১৯ ইং

স্বাস্থ্য বিভাগ ফকির : মর্গ থেকে লাশ নিতে গরীবেরও টাকা লাগে!

স্বাস্থ্য বিভাগ ফকির : মর্গ থেকে লাশ নিতে গরীবেরও টাকা লাগে!

আর এম আরিফুর রহমান : মঙ্গলবার দুপুর টা। ফেনী জেলা সদর হাসপাতালের মর্গের সামনেছিলাম। গণমাধ্যমে কাজের সুবাধে একটা লাশের ফুটেজ নিতে দাঁড়িয়েআছি। ইতোমধ্যে কিছু ফুটেজ নিয়েছি। এখন শুধু লাশ বের করারফুটেজ লাগবে। কিছুক্ষণ দাঁড়িয়ে থাকতে থাকতে অনেকক্ষণ হয়ে গেল।লাশ বের হচ্ছেনা। লাশের স্বজনদের জিজ্ঞেস করলাম, Ôলাশ বেরকরছে না কেন? উত্তরে তাদের একজন জানালেন, Ôসাত হাজার টাকা লাগবে’ শুনে আমি মুষডে গেলাম। সাত হাজার টাকা!! লাশেরস্বজনদের সাত টাকা দেয়ার সামর্থ্য নেই। লাশের পরিচয় একটু পরেইদিবো। বিষয়টি শুনে ফেনীর মানবিক সিভিল সার্জনকে ফোন দিলাম।উনি ঘটনাটি শুনে হাসপাতালের .ডি. অথবা আরএমওকে জানাতেবললেন। সাথে সাথে আরএমওকেও জানালাম। তিনি আশ্বস্ত করেবললেন, কেন টাকা লাগবে? কিসের টাকা? এতক্ষণে লাশ থেকে উৎকটগন্ধ ছড়াতে লাগলো। লাশ বের হওয়ার কোনো সাড়াশব্দ নেই। এবারলাশ দেখাশোনার কারিগর রহিম ভাইয়ের শরণাপন্ন হলাম। তিনিকথাগুলো এভাবে বললেন, ভাই আমিও গরীব, গরীব না হলে কী আরলাশ কাটতাম? লাশের ঘরে থাকতাম? টাকা লাগবে। আমাকে কীসরকার টাকা দেয়? আমার এখানে খরচ হয়। সে টাকা আমাকে কেদিবে? এসব শুনে রহিম ভাইয়ের প্রতিও মায়া বাড়লো। আমার পাশেথাকা এক ভদ্রলোক এক হাজার টাকা দিয়ে বললেন, “ভাই এবার দেনবললেন, তাদের টাকা পয়সা দেয়ার সেই সামর্থ্য নেই। লাল কচকচেনোটটি দেখেও রহিম ভাইয়ের মুখ কালো। এবার আমি গরীব মানুষটিও৫০০ টাকার একটা নোট দিয়ে হাসি ফোটানোর চেষ্টা করলাম। কিন্তুরহীম ভাই কিছুতেই হাসেনি। অনেক বিষণœ মনে লাশ নেয়ার অনুমতিদিলেন। তবে তিনি কিছুতেই লাশ ধরবেন না। গাড়িতে উনি তুলে দিতেপারবেন না। সাফ জানিয়ে দিলেন। তার চোখেমুখে তাকিয়ে আমিতখন ভাবছি। আমাদের দেশ উন্নয়নশীল দেশ, স্বাস্থ্য বিভাগের বাম্পারফলন। কয়দিন পর দেশ উন্নত রাষ্ট হবে। ফেনী জেলা সদর হাসপাতালমেডিকেল কলেজ হবে’ এই হচ্ছে তার নমুনা। লাশ আটকে রেখে টাকাআদায় এসব দৃশ্যও কিশোর দরিদ্র আবদুর রাজ্জাকের মৃত আত্মাও দেখেযেতে হচ্ছে। রাজ্জাকের পড়ে থাকা নিথর দেহ হয়তো বলছে, “স্বাস্থ্যবিভাগ ফকির : মর্গ থেকে লাশ নিতে গরীবেরও টাকা লাগে!”

আসুন লাশের পরিচয় দিই : ফেনীর সদর উপজেলার শর্শদী ইউনিয়নেরখানে বাড়ি গ্রামের মফিজুর রহমানের খামারে গত মাসে আগে কাজেযোগ দেন ১৩ বছর বয়সি কিশোর আবদুর রাজ্জাক। গত নভেম্বরদুপুরে সেখান থেকে পুলিশ রহস্যজনক লাশ উদ্ধার করে তার। সেইকিশোর রাজ্জাকের বৃদ্ধা মা, ক্যান্সার আক্রান্ত বাবার চিকিৎসা খরচযোগানের জন্য কাজে নেমে পড়েন এই বয়সে। কিন্তু মৃত্যু রাজ্জাকের প্রতিখুব রহম করেছে। তাকে এই বয়সে পরিশ্রম করতে হবেনা। নিয়ে গেছেপরপারে। বা হয়তো কেউ তাকে পরপারে পাঠিয়ে দিয়েছে। সে বিষয়এখানে টানতে চাইনা। আল্লাহ রাজ্জাককে জান্নাতবাসী করুক।আমীন।


লিডনিউজ | logo

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন    

সম্পাদক ও প্রকাশক:
ঠিকানা:
মুঠোফোন: ,ইমেইল:

© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত

ঢাকা অফিস: ১৯২ ফকিরাপুল, (৩য় তলা),
মতিঝিল, ঢাকা-১০০০।

rss goolge-plus twitter facebook
DEVELOPMENT: